গুগলে চাকরি পেতে চান? দেখে নিন আপনার কী কী দক্ষতা থাকা দরকার – Youth Carnival
Blog

গুগলে চাকরি পেতে চান? দেখে নিন আপনার কী কী দক্ষতা থাকা দরকার

প্রতিবছর প্রায় ২ মিলিয়ন তরুণ শিক্ষার্থী গুগলে কাজ করার জন্য আবেদন করে থাকে। গুগল ক্যাম্পাসে থাকা পৃথিবীর সেরা কর্মপরিবেশের পাশাপাশি বিশ্বের সবচেয়ে মেধাবী মুখগুলোর সাথে কাজ করার জন্য মুখিয়ে থাকেন বিশ্বের নানা প্রান্তের তরুণ গ্রাজুয়েটরা। তবে শুধু একাডেমিক রেজাল্ট দিয়েই কিন্তু গুগল তাদের কর্মী বাছাই করেনা। একাডেমিক রেজাল্টের পাশাপাশি গুগলে চাকরি পেতে হলে আপনার যে দক্ষতাগুলো থাকা দরকার তা নিয়ে সম্প্রতি কথা বলেছেন ক্যালিফোর্নিয়াতে অবস্থিত গুগলের হিউম্যান রিসোর্স বিভাগের প্রধান লাজলো বক (Laszlo Bock)। চলুন জেনে নেই সেই কথাগুলো।

শিক্ষাগত যোগ্যতাই প্রধান নিয়ামক নয়

গুগলে চাকরি পেতে হলে আপনাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বেঞ্চে বসা ছাত্রটি হয়ে সর্বোচ্চ সিজিপিএ পেতে হবে ব্যাপারটি কিন্তু মোটেও এরকম নয়। গুগলের কিছু কিছু টিমে এমন কর্মী খুঁজে পাওয়া যাবে যাদের কোনো প্রাতিষ্ঠানিক ডিগ্রি নেই। অনেকেই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ড্রপ আউট। গুগলের কোনো কোনো টিমে ১৪ শতাংশ কর্মী পাওয়া যাবে যাদের গুগল নিয়োগ দিয়েছে কোনো প্রাতিষ্ঠানিক ডিগ্রির তোয়াক্কা না করেই। তাই আপনার গুগলে কাজের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা তেমন কোনো বিবেচ্য বিষয়ই না। তবে আপনি যে কাজের জন্য গুগলে আবেদন করছেন সেই কাজটি আপনাকে ভালোভাবে পারতেই হবে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, আপনি যদি কোডার হিসেবে গুগলে চাকরি পেতে চান তাহলে কোডিং আপনাকে ভালোভাবে জানতেই হবে।

আপনি যে কাজের জন্য গুগলে আবেদন করছেন সেই কাজটি আপনাকে ভালোভাবে পারতেই হবে, হোক সেটি কোডিং কিংবা ম্যানেজমেন্ট

কাজকে ভালোবাসতে হবে

আপনি যে কাজটি করতে পছন্দ করতেন সেই কাজের জন্য আপনাকে গুগল নিয়োগ দিবে। অর্থাৎ গুগলের কর্মী নিয়োগের মূলমন্ত্র হচ্ছে আপনি পছন্দ করেন এবং সবচেয়ে ভালো পারেন এমন কাজটি যদি আপনি গুগলের হয়ে করতে রাজী থাকেন তবে আপনাকে স্বাগতম।

কাজকে ভালোবাসা গুগলের সাফল্যের মূলমন্ত্র

টিমওয়ার্ক

গুগলের কাজগুলোর বেশিরভাগই হয়ে থাকে টিমওয়ার্ক। বেশিরভাগ সময়ই একটি দলকে হয়তো একটি সমস্যা সমাধানের দায়িত্ব দেওয়া হয় এবং দলের সবাই মিলে সেই কাজটি সমাধান করতে হয়। আর প্রযুক্তি জগতে নিত্যনতুন সমস্যার সমাধানের জন্য টিমও হয়তো বারবার পুনর্গঠন করা লাগতে পারে। সেক্ষেত্রে নানা রকম মানুষের সাথে মানিয়ে নিতে পারাটা অনেক বড় গুণ। তাই বিশ্ববিদ্যালয় কিংবা কলেজে যদি আপনি নানা ধরণের কাজ টিম হিসেবে করে থাকেন কিংবা খেলাধুলায় টিম গঠনের ক্ষেত্রে পারদর্শী হয়ে থাকেন তবে তা আপনার গুগলে নিয়োগ পাবার ক্ষেত্রে কাজে লাগবে।

গুগলে করতে হবে প্রচুর টিমওয়ার্ক

নেতৃত্বগুণ

গুগলে কর্মীদের বেশিরভাগের কাজই যেহেতু হয়ে থাকে টিমভিত্তিক, তাই আপনার কাধে যেকোনো সময় দায়িত্ব পড়তেই পারে একটি টিমকে নেতৃত্ব দেওয়ার। শুধু টিমকে নেতৃত্ব দেওয়াই না, একটি সফলতা আর বিফলতাও অনেকাংশে নির্ভর করে দলনেতার নেতৃত্ব গুণাগুনের উপর। তাই শিক্ষাজীবনে আপনি যদি কোনো ক্লাব, সংগঠন কিংবা খেলাধুলার টিম পরিচালনা করে থাকেন তবে আপনার বাস্তব অভিজ্ঞতা এই ধরনের কাজে অনেক ইতিবাচক ফল বয়ে আনবে।

থাকতে হবে নেতৃত্বগুণ

আপনার সহকর্মীদের উপরে বিশ্বাস হারানো যাবে না

আপনি গুগলের যে শাখাতেই কাজ করুন না কেন, আপনাকে আপনার সহকর্মীদের উপর আস্থা কিংবা বিশ্বাস হারালে আপনার অবস্থানটিই নড়বড়ে হয়ে যাবে। মনে রাখতে হবে আপনার সমকক্ষ না হলে তিনি কখনই আপনার সহকর্মী হতে পারতেন না। আর কর্মক্ষেত্রে যদি সহকর্মীদের মধ্যে পারস্পরিক বিশ্বাসের ভিত্তি ভালো না হলে সহজ পরিবেশ নিশ্চিত করা কঠিন হয়ে পড়ে। আর তাই নিজেকে মানিয়ে নিতে সহকর্মীদের বিশ্বাস করতে হবে, বন্ধুত্ব তৈরি করার প্রবণতা বাড়াতে হবে।

সহকর্মীদের সাথে গড়ে তুলতে হবে সহজ সম্পর্ক

প্রতিষ্ঠানকে প্রতিনিধিত্ব করতে হবে ভালোবাসার সাথে

টেকনোলজির জগতে আপনার কাজটিই হয়তো গুগলকে এগিয়ে রাখবে বাজারে। তাই ক্রেতার কাছে গুগলকে ইতিবাচকভাবে পৌছে দিতে গুগলের প্রতিটি কর্মীকে দায়িত্ববান হতে হবে। অর্থাৎ, সহজ কথায় আপনার কর্মক্ষেত্রটিকে ভালোবাসতে হবে এবং এর প্রতি দায়বদ্ধ থাকতে হবে।

আপনার চেয়ে দক্ষ লোকটিকে নিয়োগ দিন

গুগলে কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরণের পদ্ধতি প্রয়োগ করে থাকে। এর মধ্যে একটি হলো একজন গুগল কর্মীকে বেছে নিতে হবে নিজের সহকর্মী। ধরুন, আপনি কাজ করছেন ইউটিউব টিমের সাথে। আপনি যেহেতু সেই টিমের কাজের খুঁটিনাটি জানেন সেহেতু টিমে যদি নতুন লোক দরকার হয় তাহলে নিয়োগের ক্ষেত্রে আপনার মতামতের প্রাধান্য থাকবে। তাই আপনার টিমকে সফল করার জন্য নিয়োগ দিতে হবে সেরা লোকটিকে। কারণ আপনার টিমের পারফরম্যান্সের দিয়েই যাচাই করা হবে আপনাকে।

চ্যালেঞ্জ নিতে ভালোবাসতে হবে

প্রযুক্তি জগতে কাজ করা সব সময় চ্যালেঞ্জিং। গুগলের মত প্রতিষ্ঠান থেকে যারা সেবা নেন তাদের চাহিদার সাথে খাপ খাইয়ে নিতে চাইলে আপনাকে সমাধান করতে হবে অনেক চ্যালেঞ্জ। নিত্যনতুন আইডিয়া বের করতে হবে। তাই গুগলের চাকরি পাবার জন্য ইন্টাভিউগুলোকে সাজানো হয়েছে এই মানুষগুলোকে খুঁজে বের করবার জন্য।

নিজের সেরাটা বের করে আনতে হবে

গুগল সবসময় আপনাকে নিজের সেরাটা বের করে আনার জন্য অনুপ্রেরণা দিবে। ভালো কর্মপরিবেশ দিবে, ভালো সহকর্মীর সাথে কাজ করার সুযোগ দেবে। কিন্তু বিনিময়ে আপনারও দিতে হবে আপনার সেরাটা।

শুধুই কি কোডিংয়ে দক্ষ ব্যক্তিরাই গুগলে চাকরি করেন

মোটেও না, গুগলের মত প্রতিষ্ঠানে শুধু কম্পিউটার সাইন্স পড়া লোক কাজ করেন ব্যাপারটি মোটেও তেমন নয়। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, গুগলে ব্যবসা পরিচালনা থেকে শুরু করে বাজার বিশ্লেষণের জন্য দরকার পোড় খাওয়া ব্যবসায়ী মানসিকতার কর্মী। মানুষের আচার, আচরণ কিংবা জনসাধারণের উপর নিত্যনতুন প্রোডাক্টের প্রতিক্রিয়া জানার জন্য দরকার মনোবিজ্ঞানী। এছাড়া গুগলের ব্যবসা বাড়ার সাথে সাথে এর কর্মী সংখ্যা এবং বৈচিত্র‍্যও বাড়ছে। আর তাই গুগলের চাকরি খবরাখবর জানতে চাইলে চোখ রাখতে পারুন অফিসিয়াল এই ওয়েব সাইটে- https://careers.google.com/ 

তাই আর দেরী কেন স্বপ্নের কর্মক্ষেত্র গুগলে চাকরি পেতে চাইলে প্রস্তুতির শুরু হোক এখনই।

তথ্যসূত্র
https://careers.google.com/how-we-hire/

https://www.theguardian.com/technology/2015/apr/04/how-to-get-job-at-google-meet-man-hires-fires

http://www.businessinsider.com/google-hiring-non-graduates-2013-6

https://www.themuse.com/advice/4-insider-secrets-to-getting-hired-at-google

http://www.businessinsider.com/12-tips-on-how-to-get-a-high-paying-job-at-google-even-with-a-low-gpa-2016-11/#5-grow-a-specialty-and-become-what-google-calls-a-t-shaped-person-8

Comments

comments

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

To Top