ইডিইউএফআই ফেলোশিপ স্কলারশিপ নিয়ে ফিনল্যান্ডে ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জনের সুযোগ

আপনি যদি ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করার লক্ষ্যে বিদেশে উচ্চশিক্ষার জন্য স্কলারশিপ খুঁজে থাকেন, তাহলে আজকের এই লেখাটি আপনার জন্য। ইডিইউএফআই ফেলোশিপ প্রোগ্রাম হলো ফিনল্যান্ডে ডক্টরাল থিসিসের গবেষণা চালানোর জন্য প্রাথমিক তহবিল সরবরাহকারী একটি প্রতিষ্ঠান। যারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীদের ফিনল্যান্ডে ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জনের জন্য তহবিল প্রদান করে থাকে।

ইডিইউএফআই প্রতিষ্ঠানটি পৃথিবীর প্রায় সকল দেশের শিক্ষার্থীদের স্কলারশিপ দিয়ে থাকে; Image source: forsatyab.org

ইডিইউএফআই ফেলোশিপ ডক্টরাল স্কলারশিপ সকল ডক্টরাল স্তরের তরুণ শিক্ষার্থী এবং গবেষকদের জন্য উন্মুক্ত। মাস্টার্সে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের জন্যে এই প্রতিষ্ঠান স্কলারশীপ প্রদান করে না। প্রতিষ্ঠানটির প্রথম টার্গেট থাকে ডক্টরাল স্তরের শিক্ষার্থীরা, যারা ইতোমধ্যেই কোনো একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত রয়েছে অথবা ডাবল ডক্টরেট করবে।

বছরের যেকোনো সময় স্কলারশিপের জন্য আবেদন করা যেতে পারে; image Source: scholarshipstory.com

তবে ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জনের লক্ষ্যে সকল শিক্ষার্থী এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবে। সুখের খবর এই যে, বাংলাদেশের শিক্ষার্থী ও গবেষকরাও ইডিইউএফআই ফেলোশিপ প্রোগ্রামের জন্য আবেদন করতে পারবে।  প্রোগ্রামটি সাধারণত সমস্ত বিদেশী নাগরিকদের জন্য উন্মুক্ত। তবে বিশেষ করে রাশিয়া, চীন, ভারত, চিলি, ব্রাজিল এবং উত্তর আমেরিকার শিক্ষার্থীদের ওপর বেশি জোর দেওয়া হয়।

জীবনযাত্রার ব্যয়কে সহজ করে দেওয়াই স্কলারশিপের মূল লক্ষ্য; Image source: forsatyab.org

স্কলারশিপের সময়কাল ৩-১২ মাস পর্যন্ত। যে সকল শিক্ষার্থীরা ইতোমধ্যেই ফিনল্যান্ডে অবস্থান করছেন তাদের জন্য একটি বিষয় লক্ষণীয়, ইডিইউএফআই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করার পূর্বে প্রার্থীকে ফিনল্যান্ডে এক বছরের বেশি অবস্থান করা যাবে না, অর্থাৎ প্রার্থী যদি পূর্বেই এক বছরের বেশি সময় ধরে ফিনল্যান্ডে অবস্থান করে থাকে, তবে তিনি আবেদনের জন্য অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন।

Loading...

স্কলারশিপের সুবিধাসমূহ

  • মাসিক ১,৫০০ ইউরো ভাতা বাবদ প্রদান করা হবে।
  • অনুদানটি ব্যক্তিগত এবং শুধুমাত্র ফিনল্যান্ডে ডক্টরাল রিসার্চের শিক্ষার্থীকে প্রদান করা হবে।

কে এবং কেন এই স্কলারশিপ সুবিধা পেতে পারে

প্রার্থী খুব সহজেই এই স্কলারশিপ সুবিধাটি পেতে পারে যদি,

  • প্রার্থী ফিনল্যান্ডের যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অথবা গবেষক হিসেবে কাজ করে থাকে।
  • প্রার্থী যদি একটি রিসার্চের সহকর্মী হয়ে থাকে।
  • প্রার্থী যদি একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্যে গবেষণার কার্যক্রমের জন্য সহকর্মী হয়ে থাকে।
  • গবেষণার কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদির খরচের জন্য আবেদন করে থাকলে।
  • যেকোনো রিসার্চের তদারকি করে থাকলে।

ডক্টরাল ডিগ্রি সম্পন্ন করার জন্য স্কলারশিপ হতে পারে সহায়ক; Image source: marj3.com

ফিনল্যান্ডে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করা যেকোনো বিদেশি শিক্ষার্থী এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারে। অথবা এমন কোনো তরুণ গবেষক যিনি ফিনল্যান্ডের যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে এক বছরের কম সময় ধরে গবেষণা করছেন।

কোন ধরণের কাজের জন্য অনুদান পাওয়া যায়?

ফেলোশিপ অনুদান শুধুমাত্র স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনের পর ফিনল্যান্ডের বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষাদান কার্যক্রমে সহযোগিতা করা এবং ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জনের লক্ষ্যে গবেষণার জন্য দেওয়া হয়ে থাকে।

অনুদান পাওয়ার জন্য কাজের ধারাগুলো নিচে দেওয়া হলো-

  • আপনি যদি ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জনের লক্ষ্যে সম্পূর্ণ গবেষণাটি ফিনল্যান্ডের কোনো ইউনিভার্সিটি করতে ইচ্ছুক হন, তাহলে গবেষণা শুরু করা বাবদ অনুদানটি দেওয়া হয়। তবে সম্পন্ন হয়ে যাওয়া কোনো গবেষণা বা পোস্ট ডক্টরাল ডিগ্রির গবেষণার জন্য এই অনুদান দেওয়া হয় না।
  • ফিনল্যান্ডে ডাবল ডিগ্রি শেষ করার জন্য।
  • স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করে ফিনল্যান্ডের বাইরের যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে ডক্টরাল ডিগ্রি অর্জনের জন্য রিসার্চের শিক্ষার্থীরা শিক্ষা সফর বাবদ এই অনুদান পেতে পারে। তবে সেক্ষেত্রে ফিনল্যান্ডের যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে কোনো কাজে সহযোগিতা করার জন্য অথবা ভিজিট করার জন্য আমন্ত্রণ পত্র লাগবে।

শিক্ষার্থীকে অনুদান দেওয়ার পদ্ধতি

  • ইডিইউএফআই ফেলোশিপের কোনো শিক্ষার্থী সরাসরি প্রতিষ্ঠানটি থেকে অনুদান গ্রহণ করতে পারবে না। কেননা ফেলোশিপ প্রোগ্রামটি শুধুমাত্র শিক্ষার্থীর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়ে থাকে।
  • প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয় ফান্ড থেকে শিক্ষার্থীকে গবেষণা বাবদ অর্থ প্রদান করা হবে। গবেষণা শেষ হলে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে দেওয়া খরচগুলো বিল করে ইডিইউএফআইয়ের নিকট প্রেরণ করবে।
  • গবেষণার ধরন বা বিষয়বস্তুর উপর ভিত্তি করে ৩ থেকে ১২ মাস পর্যন্ত অনুদান দেওয়া হয়।
  • অনুদানটি শুধুমাত্র ফিনল্যান্ডে অবস্থানরত বিদেশি শিক্ষার্থীর জীবনযাত্রার ব্যয়কে  সহজ করে দেওয়ার উদ্দেশ্যে দেওয়া হয়। আলাদা করে বাসস্থান, ভ্রমণ, ভিসা বা বীমার জন্য প্রতিষ্ঠানটি কোনো অর্থ প্রদান করে না।

আবেদনের সময়সীমা

প্রার্থী চাইলে যেকোনো সময় অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারে। তবে ডক্টরেট ডিগ্রির জন্য গবেষণার কাজ শুরু করার কমপক্ষে ৫ মাস পূর্বে আবেদনটি করতে হবে। আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে প্রতিষ্ঠানটি প্রায় ৩ মাস সময় নেবে। সাধারণত প্রতিবছর ৩৫-৪০ শতাংশ প্রার্থীর আবেদন মঞ্জুর করা হয়। যদি প্রার্থীর আবেদন মঞ্জুর হয়ে থাকে, তাহলে প্রার্থীর বিশ্ববিদ্যালয়ের এপ্লিকেশন ডিপার্টমেন্টে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হবে। প্রার্থীদের অনুদান পাওয়ার জন্য যে কাগজপত্রগুলো প্রয়োজন হবে, সেগুলো হলো-

  • ইডিইউএফআই প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে পাওয়া পত্রের অনুলিপি।
  • প্রার্থীর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একটি আমন্ত্রণপত্র।

আবেদন করার পদ্ধতি

আবেদনের পূর্বশর্ত হলো একজন প্রার্থীকে অবশ্যই ফিনল্যান্ডের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে ডক্টরাল রিসার্চের লক্ষ্যে যোগাযোগ করতে হবে। এজন্য প্রার্থী ফিনল্যান্ডের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটগুলো ভিজিট করে দেখতে পারে।

ইডিইউএফআই প্রতিষ্ঠানটির বিভিন্ন কর্মকর্তারা ; Image source: oph.fi

যদি ফিনল্যান্ডের কোনো ইউনিভার্সিটি আপনাকে গবেষণার কাজে নিতে আগ্রহী হয়, কেবল তখনই বিশ্ববিদ্যালয় আপনার পক্ষে ইডিইউএফআই প্রতিষ্ঠানটির নিকট অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারে। অর্থাৎ প্রার্থী শুধুমাত্র তার বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগিতা নিয়েই এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবে।

  • ইডিইউএফআই ফেলোশিপের জন্য আবেদন ফর্মটি তাদের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করা যাবে।
  • আবেদনের কোন নির্দিষ্ট সময়সীমা নেই, তবে গবেষণার কাজ শুরু করার কমপক্ষে ৫ মাস পূর্বে আবেদন করতে হবে এবং প্রতিষ্ঠানটি ৩ মাস সময় নেবে আবেদন প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে।

প্রার্থীদের সুবিধার্থে ইডিইউএফআই ফেলোশিপের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের লিংক দেওয়া হলো:

https://www.oph.fi/programmes/edufi_scholarships/edufi_fellowships

Feature image source: helsinki.fi

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *