স্পেয়ার ফাইভ রিভিউ: অবসর সময়ে আয় করার সেরা একটি ওয়েবসাইট

Source: muntasirmahdi.info

আমি সবসময়ই চেষ্টা করি যাতে ভালো কিছু অ্যাপ্লিকেশন কিংবা ওয়েবসাইট সম্পর্কে আপনাদের তথ্য দেয়া যায়, যেখান থেকে আপনারা কমবেশি কিছু টাকা আয় করতে পারবেন। আজকের আর্টিকেলটি হচ্ছে স্পেয়ার ফাইভ নিয়ে, যেটার মাধ্যমে আপনি অবসর সময়ে ছোটখাটো কিছু কাজ করে আয় করতে পারবেন। চলুন তাহলে জেনে আসি, স্পেয়ার ফাইভের খুঁটিনাটি সম্পর্কে।

Source: steemit.com

স্পেয়ার ফাইভ কি?

স্পেয়ার ফাইভ মূলত একটি ডেটা এনরিচমেন্ট কোম্পানি যেখানে ম্যাশিন লার্নিং ও আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নিয়ে কাজ করা হয়। অর্থাৎ স্পেয়ার ফাইভ আমাদের দ্বারা ম্যাশিন লার্নিংয়ের জন্য ডেটা অ্যানালাইজ করে থাকে। তারপরে তারা সেই ডেটাগুলোকে বিভিন্ন টাস্কে রূপান্তরিত করে এবং তাদের ওয়েবসাইট ও অ্যাপ্লিকেশনে সেগুলো আপলোড করে। যদিও অ্যাপ্লিকেশনটি অ্যান্ড্রয়েড ইউজারদের জন্য সহজলভ্য নয়। আপনার ব্যালেন্স যদি ১ ডলার হয়ে থাকে তাহলে তারা প্রত্যেক শুক্রবার পেপালের মাধ্যমে আপনাকে পেমেন্ট দেবে।

Source: producthunt.com

স্পেয়ার ফাইভে কাজ করতে হলে কী কী প্রয়োজন পড়বে?

  • আইফোন অথবা কম্পিউটার
  • ইন্টারনেট অ্যাক্সেস
  • পেপাল অ্যাকাউন্ট
Source: mobileworldlive.com

স্পেয়ার ফাইভে অ্যাকাউন্ট খুলবো কীভাবে?

স্পেয়ার ফাইভের হোম পেইজে যাওয়ার পর স্ক্রল করে নিচের দিক থেকে ইমেইল, ফেসবুক, লিংকডিন অথবা গুগলের অ্যাকাউন্ট দিয়ে সাইন আপ করতে পারেন। সাইন আপ করার সময় মনে রাখবেন, আপনি যদি এই লিংক থেকে সাইন আপ করেন তাহলে ১ ডলার বোনাস হিসেবে পেয়ে যাবেন এবং প্রত্যেক ১০ ডলার আয় করার সাথে সাথেই আরো ১ ডলার বোনাস পেতে থাকবেন। কিন্তু আপনি যদি সরাসরি গুগলের মাধ্যমে স্পেয়ার ফাইভের হোম পেইজ থেকে সাইন আপ করেন তাহলে এই বোনাস অফারটি পাবেন না।

Source: youtube.com

স্পেয়ার ফাইভের ড্যাশবোর্ডটি কেমন?

অ্যাকাউন্ট খোলার পর আপনার ছবির নিচে ড্যাশবোর্ড অপশন দেখা যাবে। সেখানে ক্লিক করে ড্যাশবোর্ডে অ্যাক্সেস নিতে পারেন। যেহেতু নতুন অ্যাকাউন্ট খুলেছেন সেহেতু আপনাকে বিভিন্ন কোয়ালিফায়ার পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। যখন আপনার সবগুলো পরীক্ষা দেয়া শেষ হয়ে যাবে তখন আপনার ড্যাশবোর্ডে বিভিন্ন টাস্ক দেখা যাবে। মনে রাখবেন, কোয়ালিফায়ার পরীক্ষায় প্রথমবারেই পাশ করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন। একবার যদি কোয়ালিফায়ার পরীক্ষায় পাশ করতে না পারেন তাহলে আপনি দ্বিতীয়বার হয়তো এই পরীক্ষায় অংশ নেয়ার সুযোগ পাবেন না।

Source: yassinenn.blogspot.com

ড্যাশবোর্ডের আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ ট্যাব হচ্ছে,

  • আপকামিং: এই ট্যাবে আপনি এমন কিছু টাস্ক দেখতে পাবেন যেগুলো খুব শীঘ্রই আপনাকে দেয়া হবে।
  • অ্যাভায়েলবল: এই ট্যাবে যেসব টাস্ক রয়েছে সেগুলো আপনি করতে পারবেন।
  • ইন রিভিউ: আপনি কোনো কাজ জমা দেয়ার পর সেগুলো পাবলিশ হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত এখানে দেখাবে।
  • কমপ্লিটেড: এখানে আপনার করা সকল কাজের লিস্ট দেখাবে।
  • আনঅ্যাভায়েলবল: এখানে সেসব কাজ দেখাবে যেগুলো আপনার জন্য সহজলভ্য নয়।
Source: steemit.com

স্পেয়ার ফাইভের এক্সপি সিস্টেম মানে কী?

স্পেয়ার ফাইভে আপনি যেসব কাজ করবেন সেগুলো করার পর ক্যাটাগরির ভিত্তিতে আপনাকে এক্সপি পয়েন্ট বা এক্সপেরিয়েন্স পয়েন্ট দেয়া হবে। বর্তমানে ছয়টি ক্যাটাগরিতে এই এক্সপি আপনার অ্যাকাউন্টে যুক্ত হতে পারে। আপনার এক্সপি যত বেশি হবে, আপনি কাজও তত বেশি পাবেন।

Source: fulltimeworkfromhome.com

কেনো আমি এখন পর্যন্ত কোনো কাজ পাইনি?

স্পেয়ার ফাইভ ইউজাররা প্রায়ই এই প্রশ্নটি করে থাকেন যে, আমি এখন পর্যন্ত কেন কোনো টাস্ক পাইনি? চলুন এর উত্তর খুঁজে বের করা যাক। স্পেয়ার ফাইভ মূলত ডেমোগ্র্যাফিক্যাল টার্গেটের মাধ্যমে কাজ দিয়ে থাকে। ক্লায়েন্টের আগ্রহ যেসব কাজের উপর বেশি, স্পেয়ার ফাইভ মূলত সেই কাজগুলোকেই তাদের অন্তর্ভুক্ত করে থাকে। আর সবচেয়ে মূল বিষয়টি হচ্ছে, স্পেয়ার ফাইভ কাজের সংখ্যার চেয়ে কাজের কোয়ালিটির উপর বেশি গুরুত্ব দিয়ে থাকে।

Source: yassinenn.blogspot.com

শুধুমাত্র কোয়ালিফায়ার পরীক্ষায় পাশ করলেই আপনাকে কাজ দেয়া হবে, এমনটা কখনোই মনে করবেন না। কাজ পাওয়ার জন্য আপনার প্রোফাইলকে আপডেটেড রাখতে হবে ও প্রত্যেকটি কাজ করার সময় সর্বোচ্চ দক্ষতা ও কোয়ালিটি দিয়ে কাজ করার চেষ্টা করতে হবে। স্পেয়ার ফাইভের ফ্রিকুয়েন্টলি আস্কড কোয়েশ্চন্স সেকশন থেকে এই সম্পর্কে আরো জানতে পারবেন।

Source: monedaamoneda.com

স্পেয়ার ফাইভ থেকে আয় করার কিছু স্ট্র্যাটেজি ও টিপস

  • যতগুলো কোয়ালিফায়ার পরীক্ষা আপনার ড্যাশবোর্ডে দেয়া হয়েছে, সবগুলো পূরণ করার চেষ্টা করুন। স্পেয়ার ফাইভের ইউজাররা প্রায়ই কাজ না পাওয়ার কারণে যে প্রশ্নগুলো করে থাকে, তার বেশিরভাগের উত্তরই নিহিত থাকে এই একটা কাজে, আর সেটা হচ্ছে সবগুলো কোয়ালিফায়ার পরীক্ষায় অংশ না নেয়া।
  • যখন আপনাকে কোনো টাস্ক দেয়া হবে তখন একসাথে সম্পূর্ণ কাজটি করার চেষ্টা করবেন। যদি আপনি একটি টাস্ক দেখার পর সেটা ফেলে রাখেন, তাহলে প্রায় সময়ই সেই কাজটি আর পাবেন না। হয়তো অন্য কেউ সেটা কমপ্লিট করে ফেলবে।
  • যতটা সম্ভব লেভেল বাড়ানোর চেষ্টা করুন। লেভেল বাড়ানোর জন্য স্পেয়ার ফাইভে একটিভ থাকা ও এক্সপি বৃদ্ধি করাটা জরুরী।
  • কয়েকটা অ্যাকাউন্ট খুলে কাজ করবেন না। এতে আপনার সব ধরণের অ্যাকাউন্ট ব্যান হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
Source: thewisehalf.com

চেষ্টা করবেন যত বেশি সম্ভব আপনার রেফারাল লিংক দ্বারা ইউজার যুক্ত করাতে। কারণ, যদি আপনার রেফারাল ১০০ ডলার আয় করে থাকে, তাহলে আপনি কোনো কাজ না করেই মাসে ৩০ ডলার আয় করতে পারবেন। সুতরাং, তাকে কাজ বুঝিয়ে দিন ও যত বেশি সম্ভব আপনার লিংকটি শেয়ার করার চেষ্টা করুন। এক্ষেত্রে শুধুমাত্র আপনারই লাভ নয়। কেউ যদি গুগল থেকে স্পেয়ার ফাইভে অ্যাকাউন্ট করে তাহলে সে বোনাস অফার পাবে না। কিন্তু যেকোন রেফারাল লিংক দ্বারা অ্যাকাউন্ট করলে সেই বোনাস অফার পাওয়া সম্ভব।

Source: youronlinerevenue.com

ঘরে বসে অবসর সময়ে বেশ কিছু অর্থ আয় করার জন্য অসাধারন একটি প্লাটফর্ম হচ্ছে স্পেয়ার ফাইভ। টাস্কগুলো খুবই সহজ ও ইউজার ফ্রেন্ডলি। স্পেয়ার ফাইভের ওয়েবসাইট ও অ্যাপ্লিকেশনের ইউজার ইন্টারফেস এতটাই চমৎকার যে, টাস্ক কমপ্লিট করার সময় মনে হবে আপনি কোনো গেইম খেলছেন।

Featured Image: muntasirmahdi.info

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *