মাতৃভাষা অবচেতন মনেই শেখা হয়ে যায়। কিন্তু ২য় কোনো ভাষা শেখার জন্য চেষ্টা করতে হয় সচেতনভাবে। লিসেনিং বা সঠিক ভাবে শুনতে পারার দক্ষতা ভাষা অন্য অংশগুলোর (স্পিকিং-বলা, রিডিং-পড়া, রাইটিং-লেখা) মধ্যে অন্যতম এবং অপেক্ষাকৃত বেশ জটিল। ঠিকভাবে শোনার জন্য আপনাকে মনোযোগ দিতে হয় তুলনামূলক ভাবে স্পিকিং, রিডিং কিংবা রাইটিং এর থেকে বেশী। আবার যোগাযোগ অধিকাংশই হয়ে থাকে কথা বলার মাধ্যমে তাই কোন ভাষা শেখার জন্য  লিসেনিং দক্ষতা অর্জন আবশ্যক। তাই টোফেল কিংবা আইএলটস এর মতো সার্টিফিকেট পরীক্ষার জন্য বেশ জটিল একটা পর্ব কাঙ্ক্ষিত ফলাফল অর্জনের পথে। কিন্তু কিছু কৌশল আর ঠিকভাবে এই কৌশলগুলো আয়ত্ত করার মাধ্যমে খুব সহজেই লিসেনিং দক্ষতা অর্জন করা সম্ভব।

১. নিয়মিত লিসেনিং (শোনার) এর অভ্যাস করুন এবং মনোযোগ দিন

ভাষা শিক্ষার সাধারণ সমীকরণ হচ্ছে,

আগ্রহ + মোটিভেশন + চেষ্টা = শেখা

ভাষা একটা ছোট্ট শব্দ হলেও এর ব্যাপ্তি বিশাল। এরকম কেউ নেই কিংবা হাতে গোনা কয়জন ই থাকতে পারে যারা তেমন কোন চেষ্টা ছাড়া সহজেই নতুন ভাষা শিখে ফেলে। যে কোন নতুন ভাষার ক্ষেত্রেই কিছু অংশ কঠিন আবার কিছু অংশ সহজ লাগবে।

Source: fluentu.com

ভাষা নির্ভুলভাবে শেখা বেশ দীর্ঘ ও জটিল প্রক্রিয়া। এর মধ্যে লিসেনিং অংশটি যেমন প্রয়োজনীয় তেমন জটিল বলা যেতে পারে। লিসেনিং দক্ষতা অর্জনের নিয়মিত শোনার অভ্যাস ও শোনার সময় মনোযোগ দিয়ে শুনে বোঝার চেষ্টা করবার বিকল্প নেই। শুনে বোঝার অভ্যাস রপ্ত করবার জন্য যেই কাজ গুলো করতে হবে সেগুলো নিচে দেওয়া হলো।

প্রতিবন্ধকতাগুলো একপাশে সরিয়ে রাখুন

আপনি আপনার কম্পিউটারে হয়তো কোন অডিও ক্লিপ শুনছেন কিংবা ভিডিও ক্লিপে কী বলছে শুনে বোঝার চেষ্টা করছেন তখন আপনার কোনো বন্ধু আপনাকে পোক করলো আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তার নোটিফিকেশনের শব্দ আপনার মনোযোগে ব্যাঘাত ঘটাতেই পারে। তাই যখন শোনার দক্ষতা রপ্ত করতে শুনছেন আশপাশের সব প্রতিবন্ধকতা গুলোকে সরিয়ে রাখুন। ইমেইল, হোয়াটস অ্যাপ , ফেসবুক, টুইটার, স্কাই-পি ইত্যাদি বন্ধ করে রাখুন।

আপনার আগ্রহ হারিয়ে যেতে দেবেন না

শেখার জন্য আপনি মুখস্থ করতে পারেন। কিন্তু ভাষার পরিসর এতো বেশি যে কতো মুখস্থ করবেন? মুখস্থ করতে করতে আর ভুলতে ভুলতে আপনার আগ্রহ হারিয়ে যেতেই পারে। যাই হোক না কেন কখনোই আপনার আগ্রহ হারিয়ে যেতে দেবেন না। ধৈর্য ধরতে শিখুন।

Source: mbtskoudsalg.com

নিজেকে উৎসাহিত করুন অনুশীলনে
ভাল দিন খারাপ দিন মিলেই আমাদের জীবন। শুরুতে হয়তো আপনার শেখার গ্রাফটা খাড়া উপরের দিকে থাকবে তারপর ধীরে ধীরে একসময় নিন্মগামী হতে থাকবে । একসময় একটু কঠিন হবে আগের দিনের রুটিন ধরে রাখা। এরকম পরিস্থিতিতে নিজেকে উৎসাহিত করুন শেখার গ্রাফটার সমতা বজায় রাখতে। একটু একটু করে প্রতিদিন অনুশীলনের অভ্যাস করুন
এক ঘেয়েমি কাটিয়ে মোটিভেটেড থাকা খুব জরুরী। প্রতিদিন ১৫ মিনিট একদিনে ৪ ঘণ্টার পরিশ্রমের থেকেও অনেক বেশি কাজের। একদিনে সব শিখে ফেলার মনোভাবের চেয়ে নিয়মিত অনুশীলনের অভ্যাস গড়ে তুলুন।

২. লিসেনিং গোল সেট করুন

আপনার লক্ষ্য স্থির করবার মনোভাবই পারে আপনাকে সঠিক পথে এগিয়ে নিতে। ছোট-ছোট গোল সেট করে শেষ পর্যন্ত আপনার কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছান। যেমন আগে শব্দ শুনে চেনার চেষ্টা করুন। তারপর প্রতিবার নতুন ক্লিপ কিংবা ফাইল শোনার সময় চেষ্টা করুন নতুন নতুন শব্দ শেখার। ধীরে ধীরে ছোট ছোট লক্ষ্য অর্জনের মাধ্যমে এগিয়ে যান। বাচনভঙ্গির প্রতি লক্ষ্য রাখুন আপনার উচ্চারণ ঠিক করতে।

Source: goalcast.com

৩. অর্থের প্রতি মনোযোগ দিন

একটা একটা আলাদা শব্দের প্রতি মনোযোগ না দিয়ে পুরো বাক্য কি বোঝাতে চাইছে তার দিকে লক্ষ্য রাখুন। অনেক সময় কিভাবে বলছে বা বাচনভঙ্গির উপর অর্থের পরিবর্তন হয়ে যায়। তাছাড়া এর মাধ্যমে কোনো শব্দ বাদ দিলে কিংবা বাড়তি কোন শব্দ যোগ করলে সহজেই বুঝতে পারবেন। অর্থের প্রতি মনোযোগের ক্ষেত্রে কিছু কৌশল অবলম্বন করা যেতে পারে।

কনটেক্সট এর প্রতি লক্ষ্য সেট করার অভ্যাস করুন। কোন বিষয়ে কথা বলছে সেটার প্রতি লক্ষ্য রাখলেই অনেকটা আন্দাজ করে নেয়া যায় কি বলা হচ্ছে তার সম্পর্কে।

নিখুঁত হবার কৌশল অবলম্বন করুন। আপনি কনটেক্সট সম্পর্কে ধারণা করতে শিখে গেছেন তাহলে এবার সময় হয়েছে নিখুঁতভাবে বুঝতে শেখার। মাঝে মাঝে ১০০% নিশ্চিত না হলে বার বার শুনে বোঝার চেষ্টা করা যেতে পারে।

৪. ক্রস-ট্রেনিং যোগ করুন অনুশীলন কৌশলে

একা একা কিংবা শুধু একটা পদ্ধতি ব্যাবহার করে শেখা যায় না। আপনার শেখার গতিতে বাড়তি বেগ দিতে আরও কিছু পদ্ধতি অনুসরণ করুন।

সাব-টাইটেল ব্যবহার

যেই প্রোগ্রামটি দেখছেন তার সাব-টাইটেল দেখে বুঝার চেষ্টা করুন ভাষার প্রকৃতি।

লিরিক্স ব্যবহার

গান শুনবার সময় লিরিক্সও অনেক কাজে দিতে পারে এই ক্ষেত্রে।

Source: codecondo.com

  • লিসেনিং, নতুন শব্দ শেখার কৌশল – প্রতিবার দেখা বা শোনার সময় নতুন শব্দ শেখার ও বাচনভঙ্গি আবিষ্কার করবার চেষ্টা করুন।
  • অনুকরণ করার চেষ্টা করুন – বুঝে নিয়ে যে ভাবে বলছে সেটা নকল করবার চেষ্টা করুন।
  • আপনার ভিতরের কণ্ঠ বের করে নিয়ে আসুন ব্যবহার করুন। আমাদের মাথার ভিতর ভেতরকার নিজেদের মতো করে একটা কণ্ঠ থাকে ওটা বের করে এনে ব্যবহার করবার চেষ্টা করুন।

৫. আপনার সীমাবদ্ধতাগুলোকে ধীরে ধীরে জয় করুন

কোনো কিছু শেখার আগে আপনার জানা প্রয়োজন আপনি কোন পর্যায়ে আছেন। আপনার দক্ষতা অনুযায়ী কোত্থেকে শেখা শুরু করবেন সেটা ঠিক করুন।

Source: codecondo.com

ছোট অংশগুলো প্রথমে শুনুন এবং বারবার করে শুনুন

একটা বড় রেকর্ডিং এর পুরোটা শুনে কনটেক্সট বুঝে নেবার পর ছোট ছোট অংশে ভাগ করে বারবার করে শুনে মাথায় শব্দ ও শব্দের এক্সপ্রেশন গুলো গেঁথে নিন।

এর জন্য আপনার কাছে খোলা আছে নিচের অপশন গুলো

  • গান, অনুষ্ঠান এবং ছোটদের কম্পিউটার গেম
  • ডকুমেন্টারি
  • টক, টক শো এবং ইন্টারভিউ
  • টিভি সিরিজ
  • ফিল্ম

এতক্ষণে নিশ্চয় অচেনা সংস্কৃতি ও অভিনেতা-অভিনেত্রীদের দেখতে দেখতে ক্লান্ত হয়ে গেছেন। তাহলে এবার ক্লান্তি দূর করবার জন্য আপনার পছন্দের হলিউড মুভিটির আপনি যে ভাষা শিখতে চাচ্ছেন ঐ ভাষার ডাবিং করা ভার্সন দেখে ফেলুন। এই ৫টি কৌশল মাথায় রেখে আগান এবং খুব অল্প দিনেই এর সুফল পেতে শুরু করবেন।

Featured Image: fluentu.com